আন্তর্জাতিক

স্টার্কের লক্ষ্য এখন ‘একশ মাইল’

0

ক্রিকেটের সবচেয়ে বড় আসর ওয়ানডে বিশ্বকাপ। আর এ বিশ্বকাপের সবশেষ দুই আসরে বল হাতে সেরা পারফরমারের নাম মিচেল স্টার্ক। ২০১৫ সালের আসরে ট্রেন্ট বোল্টের সমান ২২ উইকেট শিকার করেছিলেন তিনি। আর ২০১৯ সালের আসরে সবাইকে ছাড়িয়ে বাঁহাতি এ পেসারের উইকেট ছিল ২৭টি।

তিন ফরম্যাটের ক্রিকেটেই গতির ঝড় তোলেন তিনি। যার সুবাদে টেস্টে ৫৭ ম্যাচে ২৪৪, ওয়ানডেতে ৯১ ম্যাচে ১৭৮ ও টি-টোয়েন্টিতে এরই মধ্যে ৩১ ম্যাচে ৪৩ উইকেট শিকার করে ফেলেছেন স্টার্ক। তবে গতির বিষয়ে একটা আক্ষেপ এখনও রয়ে গেছে এ বাঁহাতি পেসারের।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এখনও পর্যন্ত ঘণ্টায় একশ মাইল বেগে বোলিং করতে পেরেছেন মাত্র তিনজন পেসার। সর্বোচ্চ ১০০.২ মাইল (১৬১.৩ কিমি) গতিতে বোলিং করেছেন শোয়েব আখতার। এছাড়া ১০০.১ মাইল (১৬১.১ কিমি) গতিবেগ স্পর্শ করেছেন স্টার্কের স্বদেশি দুই পেসার ব্রেট লি ও শন টেইট।

এ তিনজনের খুব কাছে গিয়েও শত মাইল ছোঁয়া হয়নি স্টার্কের। ২০১৫ সালে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে একটি ডেলিভারিতে ৯৯.৭ মাইল পর্যন্ত গতি তুলেছিলেন স্টার্ক। যা এখনও পর্যন্ত বাঁহাতি বোলারদের মধ্যে সর্বোচ্চ গতির রেকর্ড। তবে এতেই তুষ্ট থাকতে চান না স্টার্ক। তিনি বরং ছুঁতে চান একশ মাইলের কাঁটা।

নিজ দেশের সংবাদমাধ্যমকে স্টার্ক বলেছেন, ‘একশ মাইল ছুঁতে পারা সত্যিই অনেক বড় বিষয় হবে। তবে দুইবার আমি এর কাছাকাছি গিয়েছি। অল্পের জন্য হয়নি। হয়তো জিমে বাড়তি কিছু সময় কিংবা ফিটনেসে আরও জোর দিলে এটা হয়েও যেতে পারে।’

নিজের গতির সঙ্গে কোনো আপোষ হবে না জানিয়ে তিনি আরও বলেছেন, ‘২০১৯-২০ মৌসুমের ইংল্যান্ডের সফরের পর আমি নিজের মধ্যে আরও ধারাবাহিকতা নিয়ে আসতে পেরেছি। আমি এখনও জোরে বোলিং করতে চাই। কখনও নিজের গতির সঙ্গে আপোষ করতে চাই না।’

You may also like

Comments

Leave a reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *